Science

আকাশের রং নীল কেন হয়? আকাশ নীল দেখায় কেন?

আকাশের রং নীল কেন হয় এই বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য আজকের এই আলোচনার মাধ্যমে উল্লেখ করা হয়েছে।

আকাশের রং নীল কেন হয়: নীল আকাশের দিকে তাকিয়ে থাকতে সবারই ভালো লাগে। নীল আকাশ পছন্দ করে না এমন মানুষ হয়তো পৃথিবীতে নেই। ভীষণ ঝামেলা বা দুশ্চিন্তার সময়েও নীল আকাশের দিকে তাকালে আমাদের মন ভালো হয়ে যায়। কবি সাহিত্যিক গণ এই নীল আকাশ কে নিয়ে কতশত কবিতা এবং সাহিত্য রচনা করে গেছেন। শরতের নীল আকাশ আমাদের সবারই খুব পছন্দের। বর্ষাকালে কালো মেঘে ঢাকা আকাশও অনেকের অনেক ভালো লাগে। Read in English

Make Money Online With Mobile 2022

প্রতিদিন ফ্রি ১০০ টাকা মোবাইল রিচার্জ করুন অথবা বিকাশে টাকা নিন

নীল আকাশের দিকে তাকিয়ে আমাদের মনে অনেক সময় প্রশ্ন জাগতে পারে এত রং থাকবে আকাশের রং নীল কেন হয়। অন্য কোন রঙের আকাশও তো হতে পারতো। মনে মনে কল্পনা করে দেখুন তো আকাশ যদি লাল রঙের হতো তাহলে কেমন হতো? তাহলে এই পৃথিবীটাকে কেমন দেখাতো? আকাশ এর রং নীল হওয়ার পিছনে কিছু কারণ রয়েছে। নির্দিষ্ট কিছু কারণের জন্যই আকাশের রং অন্য কোন রকম না হয়ে নীল রঙের হয়ে থাকে।

আকাশের রং নীল কেন হয় এই বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য আজকের এই আলোচনার মাধ্যমে উল্লেখ করা হয়েছে। আকাশের রং নীল কেন হয় এই প্রশ্নের উত্তর বিভিন্নভাবে দেওয়া যায়। মূল কথাটি কিন্তু একই। এ বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য আজকের এই নিবন্ধের মাধ্যমে জানানোর চেষ্টা করছি।

আলোর বিচ্ছুরণ এবং আলোর বিক্ষেপণ

আকাশের রং নীল কেন হয় এ বিষয়ে সঠিক তথ্য জানতে হলে আমাদের সর্বপ্রথমে আলোর বিচ্ছুরণ এবং আলোর বিক্ষেপণ সম্পর্কে কিছু তথ্য জানতে হবে। সর্বপ্রথমে আলোর বিচ্ছুরণ এবং আলোর বিক্ষেপণ সম্পর্কে জানলে আমরা সহজেই আকাশের রং নীল কেন হয় তা জানতে পারবো।

ফেসবুক থেকে আয় করার উপায়। 2022 সালে ফেসবুক থেকে আয়

আলোর বিচ্ছুরণ: সাদা আলো কোন প্রিজম বা ওই জাতীয় কোন বস্তুর দ্বারা প্রতিসৃত হয়ে সাতটি ভিন্ন রঙের আলোয় ভেঙ্গে যায়, এই ঘটনাকে আলোর বিচ্ছুরণ বলা হয়। আমরা জানি সাতটি রং একত্রিত হয়ে সাদা রঙের তৈরি। কোন মাধ্যমের দ্বারা সাদা আলো ভেঙে যখন এই সাতটি রং তৈরি হয় সেটি আলোর বিচ্ছুরণ। বিচ্ছুরণের সময় আলোর এই সাতটি রং নিচের দিক থেকে একটি নির্দিষ্টক্রমে সাজানো থাকে।

আলোর বিক্ষেপণ: আলো একটি নির্দিষ্ট মাধ্যমে যাওয়ার সময় মাধ্যমের কণাগুলোর সাথে বাধা প্রাপ্ত হয়ে তার দিক পরিবর্তন করে। আলোর দিক পরিবর্তনের এই ঘটনাকে আলোর বিক্ষেপণ বলা হয়। সূর্য থেকে আলোকরশ্মি পৃথিবীতে আসার সময় বায়ুমণ্ডল এর ধূলিকণা গ্যাস ও ইত্যাদির ওপর আপতিত হয়ে চারদিকে ছড়িয়ে পড়ে। এই ঘটনাকে আলোর বিক্ষেপণ বলা হয়।আলোর বিক্ষেপণ

SEE MORE

মূলত আলোর বিক্ষেপণের কারণে আকাশের রং নীল দেখায়। কিভাবে এই ঘটনাটি ঘটে থাকে তা নিচে জানানো হলো।

আকাশের রং নীল কেন হয়?

মূলত আলোর বিক্ষেপণ এর ঘটনার ফলেই আকাশের রং নীল দেখায়। আমরা জেনেছি একটি কনার ওপর আলো পড়লে ভিন্ন দিকে ছড়িয়ে যাওয়ার যে প্রক্রিয়া তাকে আলোর বিক্ষেপন বলা হয়। যে আলোর তরঙ্গ দৈর্ঘ্য যত কম হয় সেই আলোর বিক্ষেপণ তত বেশি হয়। অর্থাৎ আমরা বলতে পারি আলোর বিক্ষেপণ এর তরঙ্গ দৈর্ঘ্যের ব্যাস্তানুপাতিক। সাদা আলোর মধ্যে উপস্থিত অন্য সাতটি রং এর মধ্যে থেকে নীল রঙের তরঙ্গ দৈর্ঘ্য সবচেয়ে কম থাকে, তাই নীল রঙের আলোর বিক্ষেপণ সবচেয়ে বেশি হয় এবং আমরা নীল রংটি দেখতে পাই।আকাশের রং নীল কেন হয়

অর্থাৎ আলোর বিক্ষেপণ এবং নীল রঙের তরঙ্গ দৈর্ঘ্য সবচেয়ে কম থাকার ফলে আমরা নীল আকাশ দেখতে পাই। মেঘের কোন আকারে অনেক বড় হয় তাই তা নীল রং ছাড়াও অন্য সকল রং গুলোকে বিক্ষেপিত করে। আর অন্য সব রং গুলোকে একত্রিত দেখার ফলেই আমরা মেঘকে সাদা দেখতে পাই।

কিভাবে ফ্রিল্যান্সিং শিখবো? ফ্রিল্যান্সিং কি?

বিক্ষেপণের কারণেই আমরা সূর্যোদয়ের সময় এবং সূর্যাস্ত কালীন সময়ে লাল আকাশ দেখতে পায়। সাদা রঙের মধ্যে উপস্থিত লাল রঙের তরঙ্গ দৈর্ঘ্য সবথেকে বেশি এবং তার বিক্ষেপণ কম। অন্যদিকে নীল রঙের তরঙ্গ দৈর্ঘ্য সবচেয়ে কম এবং বিক্ষেপণ সব থেকে বেশি। সূর্যোদয়ের সময় এবং সূর্যাস্তের সময় সূর্যরশ্মি পৃথিবীতে আসার সময় পুরু বায়ুমণ্ডল ভেদ করে। নীল রং বেশি বিক্ষেপিত হওয়ার ফলে চারিদিকে ছড়িয়ে পড়ে কিন্তু লাল রংয়ের তরঙ্গ দৈর্ঘ্য কম হওয়ায় তার বিক্ষেপণ কম হয় এবং পৃথিবীতে আসে। এবং সেই সময় আমরা আকাশকে লাল দেখি।

আকাশের রং বেগুনি না হয়ে নীল হয় কেন?

আমরা জানি বেগুনি রং এর তরঙ্গ দৈর্ঘ্য নীল আলোর থেকেও কম। অর্থাৎ নীল রঙের চেয়ে বেগুনি রংয়ের বিক্ষেপণ বেশি হওয়ার কথা। তাহলে আকাশের রং বেগুনি না হয়ে নীল কেন হয়?

প্রথমত বায়ুমণ্ডল পৃথিবীর সৃষ্ট থেকে এত উপরে অবস্থিত যে সেখানে বিচরিত আলো পৌঁছাতে পৌঁছাতে বায়ুমন্ডলে ওই বেগুনি রংয়ের অনেকটাই শোষিত হয়ে যায়।নীল আকাশ

দ্বিতীয়ত মানুষের রেটিনায় তিন ধরনের কোণ কোষ (Cone Cell) থেকে। এই কোষ গুলো অন্যান্য রঙের চেয়ে লাল, নীল এবং সবুজ আলোতে বেশি সংবেদনশীল। এই কোষ গুলোর বিভিন্ন অনুপাতের সংবেদনশীলতার সমন্বয়ে আমরা নানা ধরনের রং দেখতে পাই। আমাদের চোখের এই কোষগুলি অতিবেগুনি আলোক সংবেদনশীল নয়। এই কারণেই আমরা আকাশকে গাঢ় বেগুনি রঙের দেখিনা বরং নীল রঙের দেখতে পাই।

ফ্রিল্যান্সিং কিভাবে শুরু করবেন। ফ্রিল্যান্সিং এর যত নিয়ম।

আকাশ নীল দেখায় কেন?

আকাশের রং নীল কেন হয় বা আকাশ নীল দেখায় কেন এ বিষয়ে বিভিন্ন প্রশ্ন উত্তর পাওয়া যায়। বিভিন্ন ক্ষেত্রে এই প্রশ্নের উত্তর বিভিন্ন রকম ভাবে দেওয়া হয়েছে। সকলে একইভাবে প্রদানকৃত তথ্য সহজে বুঝতে পারেন না। আশা করি আলাদা আলাদা ভাবে বুঝালে সকল পাঠকগণ সহজেই আকাশ নীল দেখানোর কারণ সম্পর্কে জানতে পারবেন।আকাশ নীল দেখায় কেন

SEE MORE DETAILS

“যে আলোর তরঙ্গদৈর্ঘ্য কম হয় সে আলোর বিক্ষেপণ তত বেশি হয়। বেগুনি এবং নীল রঙের আলোর তরঙ্গ দৈর্ঘ্য সবচেয়ে কম হয়। তখন নীল আলো বিক্ষেপিত হয়ে বিভিন্ন দিকে ছড়িয়ে পড়ে তাই আমরা আকাশের রং নীল দেখতে পাই।”

“সূর্যের আলোর মধ্যে উপস্থিত সাতটি রং এর মধ্যে বেগুনি এবং নীল রঙের তরঙ্গদৈর্ঘ্য সব থেকে কম। বায়ুমন্ডলের ওজোন স্ফিয়ার অঞ্চল সূর্যের বেগুনি আলো শোষণ করে নেয়। তার ফলে সবচেয়ে কম তরঙ্গ দৈর্ঘ্যের আলো বাচে নীল। এই নীল রংয়ের আলোয় সবচেয়ে বেশি বিক্ষেপণ ঘটায়। বিক্ষেপণের ফলে চারদিকে নীল রঙের আলো ছড়িয়ে পড়ে যার ফলে আমরা আকাশ এর রং নীল দেখতে পাই।”

“বায়ুমণ্ডলের জন্য আমরা আমাদের চারিপাশে রং বা আলো দেখতে পাই। সূর্যের সাদা রং মোট সাতটি রং এর সমষ্টি। এই সাতটি রং হল, বেগুনি, নীল, আকাশী, সবুজ, হলুদ, কালো, লাল। সূর্যের সাদা আলো বায়ুমন্ডলে প্রবেশ করলে আলোর বিচ্ছুরণ হয়ে ৭টি রঙে বিভক্ত হয়ে পড়ে। তখন নীল এবং বেগুনি রংয়ের সব থেকে বেশি বিক্ষেপণ হওয়ার কথা। কিন্তু ওজোন স্তর বেগুনি রং শোষণ করে ফেলে। যার ফলে নীল রঙের আলোর সবচেয়ে বেশি বিক্ষেপণ ঘটে। এবং আমরা আকাশকে নীল দেখতে পাই।”

শেষ কথা / উপসংহার

মূলত আলোর বিচ্ছুরণ এবং বিক্ষেপণের ফলেই আমরা নীল রঙের আকাশ দেখতে পাই। আকাশের রং নীল কেন হয় এই প্রশ্নের উত্তর আমাদের এই নিবন্ধের মাধ্যমে জানানোর চেষ্টা করেছি। সূর্যের সাদা আলো ক বায়ুমন্ডলে এসে সর্বপ্রথম বিচ্ছুরিত হয়ে সাতটি আলোতে পরিণত হয়। এরপর সেই সাতটি আলোর বিক্ষেপণ ঘটে। বেগুনি এবং নীল রঙের তরঙ্গ দৈর্ঘ্য কম হওয়ায় সবথেকে বেশি বিক্ষেপণ ঘটে। বেগুনি রং শোষিত হওয়ার ফলে আমরা শুধুমাত্র নীল রঙের বিক্ষেপণ দেখতে পাই যার ফলে নীল রঙের আকাশ দেখা যায়।

আকাশের রং নীল কেন হয়, আকাশ নীল দেখায় কেন এই বিষয়ে বিস্তারিত তথ্যসমূহ আমাদের এই নিবন্ধের মাধ্যমে উল্লেখ করা হয়েছে। আশা করি সকলে তাদের প্রয়োজনীয় তথ্য সমূহ আমাদের এই নিবন্ধ থেকে জানতে। বিজ্ঞান বিষয়ক এমন নানা তথ্য পেতে আমাদের ওয়েবসাইট ভিজিট করতে পারেন। আমাদের ওয়েবসাইট ভিজিট করার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ।

Akash

I am Akash Mahmud and I am a Graduate. I love to write articles. I am friendly and helpful. You will get your required information here. Keep Supporting Us.

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button

Adblock Detected

Please Turn Off Adblocker to Get Your Information